দিরাইয়ে স্ত্রীকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করলো পাশন্ড স্বামী

প্রকাশিত: ৭:০৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০১৬

কালনী-

KalniView-Logoদিরাইয়ে স্ত্রী শিরিনা আক্তারকে (১৯) কে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করলো পাশন্ড স্বামী। হত্যার দায়ে স্বামীকে আটক করেছে এলাকাবাসী। ঘাতক স্বামী চরনারচর ইউনিয়নের মাইতি গ্রামের আব্দুল খালেক মিয়ার ছেলে সুহেল আহমদ (২৫)। জানা যায় একই গ্রামের আনছার উদ্দিনের মেয়ে শিরিনা আক্তারকে প্রায় ১ বছর পূর্বে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকেই সুহেলের পরিবার মোটা অংকের যৌতুক দাবী করে আসছে, হতদরিদ্র শিরিনার পিতা তা দিতে না পারায় প্রায়ই সুহেল ও তার স্ত্রী শিরিনার ওপর শারীরিক নির্যাতন করতো। গত বুধবার সুহেল তার শশুরবাড়িতে বেড়াতে এসে রাত্রি যাপন করে। ঘটনার দিন ভোর সাড়ে ৪টার দিকে সুহেল ও তার স্ত্রী শিরিনা বাড়ির পাশে মরা সুরমা নদীতে গোসল করতে যায়, ওই সময় সুহেল শিরিনা কে পানিতে চুবাতে থাকে। অনে ধরে মেয়ে ও জামাতা বাড়িতে না আসায় শিরিনার মা রোজিয়া বেগম নদীতে পানির শব্দ শুনতে পান, পাশে গিয়ে দেখেন তার মেয়ে শিরিনারকে তার স্বামী পানিতে চুবাচ্ছে। তার আর্তচিৎকারে বাড়ির লোকজন আসলে সুহেল পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে এলাকাবাসীর চেষ্টায় তাকে আটক করে দিরাই থানায় খবর দিলে পুলিশ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে এবং সুহেলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিছুর রহমান বলেন লাশ ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।