এসএসসির ফলাফল: দিরাইয়ে ভালো করেছে গ্রামের স্কুল,বিপর্যয়ে শহরের স্কুল

প্রকাশিত: ২:৪১ অপরাহ্ণ, জুন ৪, ২০২০

দিরাই সংবাদদাতা::
এবারের এসএসসি পরীক্ষায় গতবারের মতো শহরের স্কুল গুলোকে পিছনে ফেলে সফলতার শীর্ষে রয়েছে পাড়াগাঁয়ের অধিকাংশ বিদ্যালয়। ফলাফল বিপর্যয়ে শহরের স্কুল।

দিরাই উপজেলার ২৩টি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের শতকরা হারের ভিত্তিতে শত ভাগ পাশ করে প্রথম স্থানে রয়েছে মাটিয়াপুর এসইএনডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় আর ২৩ টি বিদ্যালয়ের মধ্যে সর্বশেষ ২৩ তম স্থানে রয়েছে দিরাই উচ্চ বিদ্যালয়। আর দিরাইয়ের একমাত্র সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের অবস্থান ৭ম স্থানে। এমন ফলাফল হতাশ অভিভাবকরা।

সন্তানের ভালো ফলাফলের আশায় উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে শহরে বাসা করে বা ভাড়া বাসায় আসছেন গ্রামের ধনী শ্রেণী ও প্রবাসী পরিবারের মানুষ। অভিযোগ রয়েছে শহরের দুটি বিদ্যালয়ে নিয়মিত ক্লাস হয় না। প্রাইভেট পড়াই শহরের ছাত্র-ছাত্রীদের ভরসা। সব মিলিয়ে এবারে শহরের চেয়ে গ্রামের বিদ্যালয় গুলো ভালো ফলাফল করেছে। এ রকম ফলাফলে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন গ্রাম থেকে শহরে আসা পরিবারের অভিভাবকরা।

এবারের এসএসসি পরীক্ষায় দিরাই উপজেলার ২৩ বিদ্যালয় থেকে মোট ২৭৬০ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে এর মধ্যে পাশ করে ১৯৯৩ জন। এ প্লাস পেয়েছে, দিরাই সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় ৯, দিরাই উচ্চ বিদ্যালয় ৮, এইচ এমপি উচ্চ বিদ্যালয় ৬, দত্তগ্রাম মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৩, ব্রজেন্দ্রগঞ্জ আরসি উচ্চ বিদ্যালয ৩, জগদল আল-ফারুক উচ্চ বিদ্যালয় ২, ফকির মোহাম্মদ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ২, ভাটিপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় ১, রজনীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয ১, রাজানগনর কেসিপি উচ্চ বিদ্যালয় ১, সরমঙ্গল আলোর দিশারী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১ জন সহ মোট ৩৭ জন। ফলাফর শতকরা ৭৬.৪২ শতাংশ।

৪১ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৪১ জন পাশ করে ১০০ ভাগ ফলাফল করে প্রথম স্থানে রয়েছে মাটিয়াপুর এসইএনডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, ৭৬ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৬৭ জন পাশ করে ৮৮.১৫ ভাগ ফলাফল করে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে সরমঙ্গল আলোর দিশারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়,৩৩ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ২৯ জন পাশ করে ৮৭.৮৭ ভাগ ফলাফল করে তৃতীয় স্থানে রয়েছে তাড়ল উচ্চ বিদ্যালয়, ৬২ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৫৪ জন পাশ করে ৮৮.১০ ভাগ ফলাফল করে চতুর্থ স্থানে রয়েছে মাতারগাঁও মোহাম্মদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, ১০১ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৮৭ জন পাশ করে ৮৬.১৪ ভাগ ফলাফল করে পঞ্চম স্থানে রয়েছে এইচএমপি উচ্চ বিদ্যালয়, ৬৯ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৫৯ জন পাশ করে ৮৫.৫১ ভাগ ফলাফল করে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে আলহাজ আব্দুল ওয়াহাব উচ্চ বিদ্যালয়। ৩৪০ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ২৮২ জন পাশ করে ৮২.৯৪ ভাগ ফলাফল করে সপ্তম স্থানে রয়েছে দিরাই সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, ৫০ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৪০ জন পাশ করে ৮০ ভাগ ফলাফল করে অষ্টম স্থানে রয়েছে আলহাজ্ব আব্দুল্লা উচ্চ বিদ্যালয়, ৮১ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৬৪ জন পাশ করে ৭৯.০১ ভাগ ফলাফল করে নবম স্থানে রয়েছে রয়েছে গচিয়া এসএস উচ্চ বিদ্যালয়, ৫২ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৪১ জন পাশ করে ৭৮.৮৫ ভাগ ফলাফল করে দশম স্থানে রয়েছে চরনারচর এসইএনডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, ২০৮ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১৫৪ জন পাশ করে ৭৮.৮৫ ভাগ ফলাফল করে ১১ তম স্থানে রয়েছে রফিনগর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, ১১৭ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৮০ জন পাশ করে ৭৪.৩৫ ভাগ ফলাফল করে ১২ তম স্থানে রয়েছে জগদল আল-ফারুক উচ্চ বিদ্যালয়, ১৩৬ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৯৭ জন পাশ করে ৭১.৩২ ভাগ ফলাফল করে ১৩ তম স্থানে রয়েছে ফকির মোহাম্মদ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, ৪৫ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৩১ জন পাশ করে ৬৮.৮৮ ভাগ ফলাফল করে ১৪ তম স্থানে রয়েছে দত্তগ্রাম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৬৭ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৪৬ জন পাশ করে ৬৮.৬৬ ভাগ ফলাফল করে ১৫ তম স্থানে রয়েছে হাতিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, ৬৩ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৪৩ জন পাশ করে ৬৮.২৫ ভাগ ফলাফল করে ১৬ তম স্থানে রয়েছে ধল পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়, ৩১ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ২১ জন পাশ করে ৬৭.৭৪ ভাগ ফলাফল করে ১৭ তম স্থানে রয়েছে ফকির মোহাম্মদ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, বাংলাদেশ ফিমেইল একাডেমী, ৬৬ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৪৩ জন পাশ করে ৬৫.১৫ ভাগ ফলাফল করে ১৮ তম স্থানে রয়েছে আলহাজ আব্দুল মতলিব উচ্চ বিদ্যালয়, ১৭৭ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১১৫ জন পাশ করে ৬৪.৯৭ ভাগ ফলাফল করে ১৯ তম স্থানে রয়েছে রাজানগর কেসিপি উচ্চ বিদ্যালয়, ৮৭ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৫৫ জন পাশ করে ৬৩.২২ ভাগ ফলাফল করে ২০ তম স্থানে রয়েছে ভাটিপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়, ৩৩০ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ২০৩ জন পাশ করে ৬১.৫২ ভাগ ফলাফল করে ২১ তম স্থানে রয়েছে ব্রজেন্দ্রগঞ্জ আরসি উচ্চ বিদ্যালয়, ১৯৮ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১২১ জন পাশ করে ৬১.১১ ভাগ ফলাফল করে ২২ তম স্থানে রয়েছে রজনীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় ও ৩৬০ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ২১৩ জন পাশ করে ৫৯.১৭ ভাগ ফলাফল করে ২৩ তম স্থানে রয়েছে দিরাই উচ্চ বিদ্যালয়।

দিরাই উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা শিক্ষকদের দলাদলি ও নেতৃত্ব নিয়ে বাড়াবাড়ির কারণেই ফলাফল বিপর্যয় হয়েছে বলে মনে করছেন।