দিরাই ভাটিপাড়া নৌকাঘাট নিয়ে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা

প্রকাশিত: ৮:০১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২০

দিরাই প্রতিনিধি:
দিরাই ভাটিপাড়া -পাথারিয়া নৌকাঘাটে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে চাঁদাবাজি শিরোনামে বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকেলে নৌকাঘাটে প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে নৌকা মালিক ও চালকপক্ষ । এলাকার সালিশ ব্যক্তিত্ব পুলিশ মিয়ার সভাপতিত্বে ও নৌকা ঘাটের সুপারভাইজার সুমন মিয়ার পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন শিমুলবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী জিতু, ভাটিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান কাজী, ভাটিপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজ চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা তালুকদার শাহ আলম দ্বীপ, প্রবীন মুরব্বী তারা মিয়া, সফিউর রহমান পিন্টু, নৌকার মালিক ও চালক আশিক মিয়া, আমীর হোসেন প্রমুখ। চেয়ারম্যান জিতু মিয়া বলেন, ওই নৌকাঘাট এক সময় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার আওতাধীন ছিল। দুই বছর পুর্বে সৃষ্ট অনাকাঙ্খিত ঘটনার পর আমরা রফিনগর ইউনিয়ন, ভাটিপাড়া, শিমুলবাক এবং পাথরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সবাই একত্রিত হয়ে সরকারি রেন্ট দিয়ে নৌকা ঘাটের সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি করতে দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলা থেকে স্থানান্তর করে দিরাই উপজেলার পান গাও শ্মশান ঘাটের পাশে নৌকা ঘাট নিয়ে আসি। গতবছর থেকে এলাকার অসহায়, সাধারণ নৌকা চালকদের সুবিধার্থে নৌকা ঘাটটি উম্মুক্ত রাখা হয়েছে, ওই ঘাটে কোনো নৌকা চালকদের কাছ থেকে কোনো চাঁদা আদায় করা হচ্ছে না। আমরা সবাই মিলে ঘাটের শান্তিপুর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে দুই জন সুপার ভাইজার নিয়োগ করেছি কিন্তু পরিতাপের বিষয় কয়েকটি অনলাইন ও প্রিন্ট পত্রিকায় ঘাটের দায়িত্বশীল, জনপ্রতিনিধি বা এলাকার সালিশ অথবা নৌকা মালিক ও চালকদের কোনো বক্তব্য না দিয়ে নিজ স্বার্থ হাসিলে ব্যর্থ হয়ে নৌকা ঘাট সম্পর্কে মিথ্যা, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করছে, আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি, এতে আমাদের এলাকার মান সম্মান ও ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে, আমরা অচিরেই আইনের আশ্রয় নেব। নৌকা চালক রব্বানী, মাসুক মিয়া, আশিক মিয়া, আমির হোসেন বলেন, আমাদের কাছ থেকে কেউ চাঁদা নেয়নি, ঘাটের শৃঙ্খলার স্বার্থে আমরা সবাই মিলে সুপারভাইজার নিয়োগ করেছি, মাস খানেকের মধ্যে আমাদের ঘাটে কোনো সংবাদকর্মী আসেননি, আমাদের ঘাটের সুন্দর পরিবেশ নষ্ট করতে কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় সংবাদকর্মী আমাদের কারো বক্তব্য না নিয়ে মনগড়া ভিত্তিহীন সংবাদ পরিবেশন করছে, আমরা এর নিন্দা জানাতে আজকের প্রতিবাদ সভার আয়োজন করছি, আমরা আইনের আশ্রয় নেব ।