স্বামীর পরকীয়ার বলি সেই মা-ছেলে!

প্রকাশিত: ৪:১৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৬, ২০২০

কালনী ভিউ ডেস্ক::
জামালপুরের মাদারগঞ্জে পরকীয়ার বলি মা ও ছেলে। পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় স্ত্রী মমিনা আক্তার শিখা (৪০) ও সন্তান তাওহীদকে (৩) খুন করেছে স্বামী হারুন অর রশিদ পলাশ। তাকে আটক করেছে মাদারগঞ্জ থানা পুলিশ।

উপজেলার গুণারীতলা ইউনিয়নের চরগোপালপুর গ্রামে বুধবার মধ্যরাতে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে। আটক হারুন অর রশিদ পলাশ গুনারীতলা ইউনিয়নের চরগোপালপুর গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে।

নিহত মমিনা আক্তার শিখার ছোট বোন নাসরিন তাবাসসুম কেয়া জানান, স-মিল মালিক হারুন অর রশিদ পলাশ দীর্ঘদিন যাবৎ পরকীয়ায় আসক্ত থাকায় পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। স্ত্রী মমিনা আক্তার শিখা পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় বুধবার মধ্যরাতে তাকে এবং তার তিন বছরের শিশুপুত্র তাওহীদকে হারুনুর অর রশিদ পলাশ হত্যা করেছে। তারা এই নির্মম হত্যাকাণ্ডের জন্য কঠোর বিচারের দাবি জানান।

মাদারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, বুধবার মধ্যরাতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করার পর হারুন অর রশিদ পলাশকে আটক করে পুলিশ। নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জামালপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সীমা রাণী সরকার জানান, নিহতদের গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা করছে পুলিশ। এছাড়া নিহতদের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনাটি তদন্ত করে দোষীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।