হবিগঞ্জে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ৩০

প্রকাশিত: ৪:১০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০২০

কালনী ভিউ ডেস্ক::
হবিগঞ্জে দুই চেয়ারম্যানের লোকজনের মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন।

গুরুতর আহত ১৫ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৬০ রাউন্ড শর্টগান ও ১৩ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

শুক্রবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত সদর উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের দরিয়াপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার এসআই শাহিদ মিয়া জানান, নিজামপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান তাজ উদ্দিনের সাথে কোম্পানির জায়গা দখলসহ বিভিন্ন বিষয়াধী নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছে একই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়ালের। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বেশ কয়েকবার সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।

সবশেষ বর্তমান চেয়ারম্যান তাজ উদ্দিনের ৮৫ লাখ টাকার চেক ডিজঅনার মামলায় জামিন নিয়ে কারাগার থেকে বের হয়ে আসে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল।

এরই প্রেক্ষিতে ওই সময় উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ৬০ রাউন্ড শর্টগান ও ১৩ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এছাড়াও দাঙ্গায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১০ জনকে তাৎক্ষণিক আটক করা হয়েছে। থানায় তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে।

সংঘর্ষে আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, এসআই শাহিদ মিয়া, এসআই আব্দুর রহিম, এসআই হারুন আল রশিদ, এএসআই বিজয় সিংহ, কনস্টেবল শামীম ও হারুন।

এছাড়াও অন্যান্য আহতরা হলেন, আব্দুল আহাদ, আব্দুস সালাম, সোহেল মিয়া, শিকন মিয়া, শাহ আলম, উসমান আলী, মহিবুর রহমান, বিলাত আলী, ছমেদ মিয়া, শাহিদ, কাজল মিয়া, তৌহিদ মিয়া, আব্দুল জাব্বার।