সিলেটে ট্রাফিকের অভিযানে ৪২ যানবাহন আটক

প্রকাশিত: ১০:০৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০

কালনী ভিউ ডেস্ক::
সিলেট মহানগরীর বিভিন্ন সড়কে বেপরোয়া গতিতে প্রতিযোগীতা করে মোটরসাইকেল চালানোর কারণে সড়ক দুর্ঘটনার সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। যার ফলে ঝরে যাচ্ছে মূল্যবান প্রাণ ও পঙ্গুত্ব বরণ করছেন অনেকে।

এ অবস্থায় জনসাধারণের জীবন নিরাপদ রাখতে ও সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে চেকপোস্টের মাধ্যমে বেপরোয়া গতিতে চালানো মোটরসাইকেল চালক, নিষিদ্ধ যানবাহন, রেজিস্ট্রেশনবিহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে এসএমপির ট্রাফিক বিভাগ।

শুক্রবার সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর) আবুল খয়েরের নেতৃত্বে বিমানবন্দর সড়কসহ নগরীর বিভিন্ন সড়কে বেপরোয়া গতিতে চালানো মোটরসাইকেল চালকদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়। এসময় বিভিন্ন ধরণের ৪২টি যানবাহন ডাম্পিং করা হয়। এছাড়া যানবাহনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঠিক প্রদর্শনকারী চালকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।

অভিযানকালে মোটরসাইকেলে চালক ব্যতীত একজনের বেশি আরোহী, চালক ও আরোহী উভয়েই সঠিকভাবে হেলমেট ব্যবহার না করা, গাড়ির বৈধ কাগজপত্র ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত যানবাহন চালানো, বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল চালানো, উচ্চ শব্দ সৃষ্টিকারী সাইলেন্সার ব্যবহার করে পরিবেশ দূষণ করা, মোটরসাইকেলের লুকিং গ্লাস খোলা এবং উল্টো পথে গাড়ি চালানোর অপরাধে মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে ট্রাফিক বিভাগ।

এ সময় মাইকিংয়ের মাধ্যমে মোটরসাইকেলে চালক ব্যতীত একজনের বেশী আরোহী বহন না করা, চালক ও আরোহী উভয়েই সঠিকভাবে হেলমেট ব্যবহার করা, বৈধ কাগজপত্র ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত মোটরসাইকেল না চালানো, বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল না চালানো, উচ্চ শব্দকারী সাইলেন্সার ব্যবহার করে পরিবেশ দূষণ না করা, মোটরসাইকেলের লুকিং গ্লাস ব্যবহার করা এবং উল্টোপথে গাড়ী না চালানো, রাস্তা পারাপারে সতর্কতা, মোবাইল ফোনে কথা বলা অবস্থায় রাস্তা পারাপার না হওয়া, ফুটপাত ব্যবহার করা, রাস্তার ডান পাশ দিয়ে চলা, রাস্তা পারাপারে জেব্রা ক্রসিং ব্যবহার করা, সময় বাঁচাতে গিয়ে ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত কোন কিছু বহন না করার জন্য অনুরোধ করা হয়।