,

ছেলে হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে তুহিনের বাবা

কালনী ভিউ ডেস্ক::
সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউড়া গ্রামে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে স্বজনদের হাতে শিশু তুহিনকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির জড়িত থাকার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন।

তিন দিনের রিমান্ড শেষে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় সুনামগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্টেট আদালতে হাজির করা হয়েছে বাবা আব্দুল বাছিরকে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় (এ রিপোর্ট লেখার সময়) তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরের ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করছেন আদালতের বিচারক মো. খালেদ মিয়া। স্বীকারোক্তির তথ্য নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আবু তাহের মোল্লা।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, রিমান্ডে তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির ছেলে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদানের জন্য তাকে আদালতে তোলা হয়েছে।

তিন দিনের রিমান্ডে থাকা তুহিনের চাচা আব্দুল মছব্বির ও জমসেদ আলীকে রিমান্ড শেষে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত রোববার রাতে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউরা গ্রামে রাতের আঁধারে ঘর থেকে তুলে নিয়ে পাঁচ বছরের শিশু তুহিনকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। ঘাতকরা তার লাশ রাস্তার পাশের একটি গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। দুর্বৃত্তরা তুহিনের পেটে দুটি ছুরি ঢুকিয়ে রাখে। দুটি কান ও এমনকি যৌনাঙ্গটিও কেটে ফেলা তারা।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সুনামগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় দেয়া জবানবন্দিতে খুনের ঘটনায় সম্পৃক্তার কথা স্বীকার করেছেন শিশু তুহিনের চাচা নাসির উদ্দিন ও চাচাতো ভাই শাহরিয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর