করোনায় এ পর্যন্ত বিদেশের মাটিতে ৮০০ অধিক রেমিট্যান্স যোদ্ধার মৃত্যু

প্রকাশিত: ৭:২৬ অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২০

কালনী ভিউ ডেস্ক::
করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের পর মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবে মঙ্গলবার পর্যন্ত মৃত বাংলাদেশির সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে।

রিয়াদ ও জেদ্দা মিশনের তথ্য অনুযায়ী আজ পর্যন্ত দেশটিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ২০২ জন বাংলাদেশি মারা গেছেন। এ নিয়ে ১৮ দেশে ৮০৬ জন বাংলাদেশি মারা গেছেন এ ভাইরাসের সংক্রমণে।

সৌদি আরবের রিয়াদ ও জেদ্দায় বাংলাদেশ মিশনে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত এক সপ্তাহে ওই দেশটিতে অন্তত ৭০ জন বাংলাদেশি মারা গেছেন।

“জরুরি টেলিফোন সেবা ৯৩৭–এ যোগাযোগ করে আগের মতো সেবা পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে করোনাভাইরাসের উপসর্গ রয়েছে এমন লোকজন ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।”

এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ২৬৪ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মারা গেছেন। তবে গত বৃহস্পতিবারের পর থেকে দেশটিতে নতুন করে কোনো বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

একই অবস্থা যুক্তরাজ্যেও। গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশটিতে মারা গেছেন ২২০ জন বাংলাদেশি। মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ১৮ টি দেশে ৮০৬ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মারা গেছেন।

অন্যান্য দেশগুলোর মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৪৬ জন, কুয়েতে ২৫, ইতালি ও কানাডায় ৯ জন করে, সুইডেনে ৮, কাতারে ৬, ফ্রান্স ও স্পেনে ৫ জন করে এবং বাহরাইন, মালদ্বীপ, পর্তুগাল, কেনিয়া, লিবিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও গাম্বিয়ায় ১ জন করে বাংলাদেশি মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি মারা গেলেও এ দুই দেশে কতজন আক্রান্ত হয়েছেন, সেটি এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

ওই দুই দেশে বাংলাদেশের মিশন, প্রবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে কথা বলে স্পষ্ট কোনো ধারণা পাওয়া যায়নি। তবে আজ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি আক্রান্ত হয়েছেন সিঙ্গাপুরে। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

এ ছাড়া সৌদি আরবে ১১ হাজার, কাতারে প্রায় ৪ হাজার, সংযুক্ত আরব আমিরাতে সাড়ে ৩ হাজার, কুয়েতে ১ হাজার, বাহরাইনে ৪০০, ইতালিতে ২০০ এবং স্পেনে ১৫০ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

অর্থাৎ, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য বাদ দিয়ে এই ৮ দেশে আজ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশির সংখ্যা ৩৬ হাজারের বেশি।