‌‌‘হোন্ডা’র বিশেষ মোটরসাইকেল, দাম হাতের নাগালেই

প্রকাশিত: ৩:৩২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০২০

কালনী ভিউ ডেস্ক::
বাংলাদেশের মানুষের গড় উচ্চতা, রাস্তার অবস্থা, আর্থিক সামর্থ্য ও জ্বালানি সাশ্রয়ের কথা মাথায় রেখে প্রথমবারের মতো বিশেষ মোটরসাইকেল উৎপাদন করেছে হোন্ডা।

বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে ড্রিম-১১০ ব্র্যান্ডের নতুন এই মোটরসাইকেল বাজারজাতের ঘোষণা দেয়া হয়।

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় হোন্ডার কারখানায় গতকাল এ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

লাল, কালো ও নীল-এই তিন রঙে মোটরসাইকেলটি বাজারে পাওয়া যাবে।

মোটরসাইকেলটির উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেডের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ড্রিম-১১০ মডেলের মোটরসাইকেলটি প্রতি লিটার জ্বালানিতে চলবে ৭৪ কিলোমিটার। কারণ, এ দেশের মানুষ জ্বালানি সাশ্রয়ী মোটরসাইকেল বেশি পছন্দ করে।

১১০ সিসি ইঞ্জিনে প্রতি লিটার জ্বালানিতে যাবে ৭৪ কিলোমিটার, বাংলাদেশি রাইডারদের উচ্চতা অনুযায়ী আসন পাশাপাশি এ দেশের মানুষ কম দামে ভালো মোটরসাইকেল পেতে চান। তাদের সেই চাহিদার কথা মাথায় রেখে নতুন মডেলের মোটরসাইকেলটির দাম ঠিক করা হয়েছে ৮৯ হাজার ৯০০ টাকা।

অথচ ২০১৬ সালেও বাংলাদেশে এই মানের একটি মোটরসাইকেলের দাম ছিল প্রায় দেড় লাখ টাকা।

হোন্ডার বাংলাদেশে নিজস্ব কারখানা স্থাপন করে উৎপাদন করায় প্রায় ৬০ হাজার টাকা কম দামে এটি বিক্রি করতে পারছে।

নতুন মোটরসাইকেলটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিমিহিকো কাতসুকি বলেন, হোন্ডা সাশ্রয়ী মূল্যে সবচেয়ে ভালো মানের পণ্য সরবরাহের মাধ্যমে সমাজের প্রতি অবদান রাখবে। পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে আনন্দ ও যাতায়াতের স্বাধীনতা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।