লন্ডন ০১:২৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের শাস্তি নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে- এড.শামসুল ইসলাম

কাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সিলেটের সাধারণ সম্পাদক, সিলেট ল কলেজের সাবেক ভিপি, সিলেট কোর্টের এডিশনাল পিপি এডভোকেট শামসুল ইসলাম বলেছেন, ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয় একটি দলের নেতার নেতৃত্বে যিনি পরবর্তীতে সেনা প্রধান হন, একটি রাজনৈতিক দলও করেন। ইনডেমিনিটির মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডের বিচারের পথ রুদ্ধ করে তারা। স্বাধীনতা বিরোধীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয়, পুরস্কৃত করে।

১৯৭৫ সালে বাংলাদেশের ভবিষ্যতকে বদলে দেওয়ার জন্য যে কলঙ্কিত চেষ্টা নেওয়া হয়েছিল, যে নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছিল, তার সঙ্গে কারা কারা জড়িত ছিল, সেটা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে জানাতে হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের পুরস্কৃত করেছিলেন জিয়াউর রহমান। জিয়া খুনিদের কাউকে এমপি, কাউকে মন্ত্রী আবার কাউকে বিদেশে রাষ্ট্রদূত বানিয়েছিল। সেইসব খুনিদের দেশে এনে শাস্তি নিশ্চিত করতে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের অনুসারীরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে একাধিকবার হত্যার চেষ্টা করেছে কিন্তূ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকরা তা হতে দেয়নি। তিনি বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে প্রবাসীদের কাজ করার আহ্বান জানান।

গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের একটি কনফারেন্স হলে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস শাকুর খান মাখনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ মুতালিবের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরী সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ। সভা শেষে দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা হারুন আহমদ। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টা হারুন আহমদ, নুরুল ইসলাম বাঙালি, আব্দুল হাসিব, মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল বাছিত, তাহের লুৎফুর ,আবু তাহের সিদ্দিক বাবুল, ইসলাম উদ্দিন, মিশিগান স্টেট আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সেবুল আহমদ, মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট নুরুল হাসান পারভেজ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির আহমদ, নজরুল ইসলাম জিতু, শামসুল হুদা পাশা, জাইক উদ্দিন, জুবায়ের আহমদ, আমিরুল ইসলাম খসরু, শাহ সেবুল, কাজল মিয়া মেম্বার, বকুল আহমদ, মিশিগান স্টেট যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ সালেক, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক রুম্মান চৌধুরী ইভান, মিশিগান স্টেট যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ইয়াহিয়া, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ আহমদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোস্তফা আহমদ, উপ-প্রচার সম্পাদক মিলাক মারচেন্ট, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক হিমেল দাস, মিশিগান স্টেইট যুবলীগের কার্যকারী কমিটির সদস্য আসিফ সিকদার, গৌতম দেব, মো: লিমন শাহ, মঈনুল হক, মিশিগান স্টেট ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক কাজী মামুন, যুগ্ম আহবায়ক এজে পাশা,রেজাউল হাসান, সম্পাদক ছাব্বির আহমদ, মিশিগান স্টেট যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ইয়াহিয়া, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ আহমদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোস্তফা আহমদ, উপ-প্রচার সম্পাদক মিলাক মারচেন্ট, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক হিমেল দাস, মিশিগান স্টেইট যুবলীগের কার্যকারী কমিটির সদস্য আসিফ সিকদার, গৌতম দেব, মো: লিমন শাহ, মঈনুল হক, মিশিগান স্টেট স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল বাচিত মধু, সদস্য সচিব ফয়ছল আহমদ চৌধুরী রুবেল, মিশিগান স্টেট ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক কাজী মামুন, যুগ্ম আহবায়ক এজে পাশা,রেজাউল হাসান,আরিফ জিসান, এমরান এইছ নাহিদ প্রমুখ।

ট্যাগ:
লেখক সম্পর্কে

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের শাস্তি নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে- এড.শামসুল ইসলাম

প্রকাশের সময়: ০৭:০৬:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ অগাস্ট ২০২৩

কাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সিলেটের সাধারণ সম্পাদক, সিলেট ল কলেজের সাবেক ভিপি, সিলেট কোর্টের এডিশনাল পিপি এডভোকেট শামসুল ইসলাম বলেছেন, ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয় একটি দলের নেতার নেতৃত্বে যিনি পরবর্তীতে সেনা প্রধান হন, একটি রাজনৈতিক দলও করেন। ইনডেমিনিটির মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডের বিচারের পথ রুদ্ধ করে তারা। স্বাধীনতা বিরোধীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয়, পুরস্কৃত করে।

১৯৭৫ সালে বাংলাদেশের ভবিষ্যতকে বদলে দেওয়ার জন্য যে কলঙ্কিত চেষ্টা নেওয়া হয়েছিল, যে নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছিল, তার সঙ্গে কারা কারা জড়িত ছিল, সেটা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে জানাতে হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের পুরস্কৃত করেছিলেন জিয়াউর রহমান। জিয়া খুনিদের কাউকে এমপি, কাউকে মন্ত্রী আবার কাউকে বিদেশে রাষ্ট্রদূত বানিয়েছিল। সেইসব খুনিদের দেশে এনে শাস্তি নিশ্চিত করতে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের অনুসারীরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে একাধিকবার হত্যার চেষ্টা করেছে কিন্তূ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকরা তা হতে দেয়নি। তিনি বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে প্রবাসীদের কাজ করার আহ্বান জানান।

গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের একটি কনফারেন্স হলে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস শাকুর খান মাখনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ মুতালিবের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরী সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ। সভা শেষে দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা হারুন আহমদ। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টা হারুন আহমদ, নুরুল ইসলাম বাঙালি, আব্দুল হাসিব, মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল বাছিত, তাহের লুৎফুর ,আবু তাহের সিদ্দিক বাবুল, ইসলাম উদ্দিন, মিশিগান স্টেট আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সেবুল আহমদ, মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট নুরুল হাসান পারভেজ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির আহমদ, নজরুল ইসলাম জিতু, শামসুল হুদা পাশা, জাইক উদ্দিন, জুবায়ের আহমদ, আমিরুল ইসলাম খসরু, শাহ সেবুল, কাজল মিয়া মেম্বার, বকুল আহমদ, মিশিগান স্টেট যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ সালেক, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক রুম্মান চৌধুরী ইভান, মিশিগান স্টেট যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ইয়াহিয়া, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ আহমদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোস্তফা আহমদ, উপ-প্রচার সম্পাদক মিলাক মারচেন্ট, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক হিমেল দাস, মিশিগান স্টেইট যুবলীগের কার্যকারী কমিটির সদস্য আসিফ সিকদার, গৌতম দেব, মো: লিমন শাহ, মঈনুল হক, মিশিগান স্টেট ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক কাজী মামুন, যুগ্ম আহবায়ক এজে পাশা,রেজাউল হাসান, সম্পাদক ছাব্বির আহমদ, মিশিগান স্টেট যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ইয়াহিয়া, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ আহমদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোস্তফা আহমদ, উপ-প্রচার সম্পাদক মিলাক মারচেন্ট, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক হিমেল দাস, মিশিগান স্টেইট যুবলীগের কার্যকারী কমিটির সদস্য আসিফ সিকদার, গৌতম দেব, মো: লিমন শাহ, মঈনুল হক, মিশিগান স্টেট স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল বাচিত মধু, সদস্য সচিব ফয়ছল আহমদ চৌধুরী রুবেল, মিশিগান স্টেট ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক কাজী মামুন, যুগ্ম আহবায়ক এজে পাশা,রেজাউল হাসান,আরিফ জিসান, এমরান এইছ নাহিদ প্রমুখ।