লন্ডন ০১:২৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ব্যবসা করতে হবে দেশ ও জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে- ইউএনও মামুন

  • কালনী ভিউ
  • প্রকাশের সময়: ০৩:৫৩:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০২৩
  • ৫২৩

সুনামগঞ্জের দিরাই বাজারে অতিরিক্ত মূল্যে পেয়াজ বিক্রি, পণ্যের মূল্য তালিকা হালনাগাদ না থাকায় ভোক্তা অধিকার আইনে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ৫টি দোকানে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) বিকালে দিরাই বাজারের বিভিন্ন দোকানে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

জানা যায়, দিরাই বাজারে বেশি মূল্যে পেয়াজ ও আলু বিক্রি হচ্ছে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক অভিযানে নামেন দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান মামুন। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শরীফুল আলম ও পুলিশ সদস্যরা।

অভিযানে বেশি মূল্যে পেয়াজ ও আলু বিক্রি, পণ্যের মূল্য হালনাগাদ না থাকায় বাজারের নারায়ণ স্টোরে ৫ হাজার, বিথিন্দ্র স্টোরে ১ হাজার, বিষ্ণু আচার্য্য স্টোরে ১ হাজার, রিংকু স্টোরে ২ হাজার ও অনুকূল স্টোরে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানের খবর পেয়ে অমল এন্ড রাজু স্টোরের মালিক গা ঢাকা দেয়।

অভিযান শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুর রহমান মামুন সাংবাদিকদের জানান, ব্যবসা করতে হবে দেশ ও জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে। হঠাৎ কোনো ইস্যু পেলেই যেন কোনো ব্যবসায়ী পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করে সাধারণ ভোক্তাদের কষ্টে না পেলেন।

তিনি আরও বলেন, আজকে অতিরিক্ত মূল্যে পেয়াজ বিক্রি, পণ্যের মূল্য তালিকা হালনাগাদ না থাকায় ভোক্তা অধিকার আইনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৫টি দোকানে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

ট্যাগ:
লেখক সম্পর্কে

ব্যবসা করতে হবে দেশ ও জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে- ইউএনও মামুন

প্রকাশের সময়: ০৩:৫৩:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০২৩

সুনামগঞ্জের দিরাই বাজারে অতিরিক্ত মূল্যে পেয়াজ বিক্রি, পণ্যের মূল্য তালিকা হালনাগাদ না থাকায় ভোক্তা অধিকার আইনে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ৫টি দোকানে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) বিকালে দিরাই বাজারের বিভিন্ন দোকানে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

জানা যায়, দিরাই বাজারে বেশি মূল্যে পেয়াজ ও আলু বিক্রি হচ্ছে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক অভিযানে নামেন দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান মামুন। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শরীফুল আলম ও পুলিশ সদস্যরা।

অভিযানে বেশি মূল্যে পেয়াজ ও আলু বিক্রি, পণ্যের মূল্য হালনাগাদ না থাকায় বাজারের নারায়ণ স্টোরে ৫ হাজার, বিথিন্দ্র স্টোরে ১ হাজার, বিষ্ণু আচার্য্য স্টোরে ১ হাজার, রিংকু স্টোরে ২ হাজার ও অনুকূল স্টোরে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানের খবর পেয়ে অমল এন্ড রাজু স্টোরের মালিক গা ঢাকা দেয়।

অভিযান শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুর রহমান মামুন সাংবাদিকদের জানান, ব্যবসা করতে হবে দেশ ও জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে। হঠাৎ কোনো ইস্যু পেলেই যেন কোনো ব্যবসায়ী পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করে সাধারণ ভোক্তাদের কষ্টে না পেলেন।

তিনি আরও বলেন, আজকে অতিরিক্ত মূল্যে পেয়াজ বিক্রি, পণ্যের মূল্য তালিকা হালনাগাদ না থাকায় ভোক্তা অধিকার আইনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৫টি দোকানে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।