লন্ডন ০২:২১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দিরাইয়ে কালনী সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • কালনী ভিউ
  • প্রকাশের সময়: ০৪:০১:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩
  • ৫৩০

দিরাইবাসীর দীর্ঘ প্রতিক্ষিত কালনী সেতুর উদ্বোধন করা হয়েছে। দিরাই পৌর শহরের প্রাণকেন্দ্র ডাক বাংলোয় এলাকায় কালনী নদীর উপর স্থাপিত ২১০ মিটার পিএসসি গার্ডার সেতুটি মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতুটির উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ সিদ্দিকী এনডিসি, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মকসুদ চৌধুরী, দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান মামুন, দিরাই পৌরসভার মেয়র বিশ্বজিৎ রায়, দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন, উপজেলা প্রকৌশলী ইফতেখার হোসেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আতাউর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি কামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায় প্রমুখ। উদ্বোধন শেষে দোয়া পরিচালনা করেন উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের ইমাম হাফিজ ইদ্রিস আহমদ।

জানা যায়, উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলা কালনী নদীর উপর ২১০ মিটার পিএসসি গার্ডার সেতুটি ২০১৬ সালে ফেব্রুয়ারি থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ছিল বাস্তবায়নকাল। সেতু থেকে সংযোগ সড়ক তৈরি হলে দিরাই উপজেলা সদর থেকে ভায়া জগদল, হোসেনপুর, পাইকাপন, তেলিকোণা হয়ে পার্শ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়ার সাথে গিয়ে যুক্ত হবে এর সড়ক পথ। এ সেতুটি দুটি অংশে নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করা হয়। ২১০ মিটারের মূল সেতুটি নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ২১ কোটি ৭১ লক্ষ টাকা। আর এপ্রোচ নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সেতুটি নির্মাণ হওয়ায় ও প্রক্রিয়াধীন সড়ক নির্মাণ হলে করিমপুর ও জগদল ইউনিয়নসহ পার্শ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার সাথে সড়ক যোগাযোগ স্থাপিত হবে। ২টি ইউনিয়নের ৩০টি গ্রামের প্রায় লক্ষ দেড় লক্ষ মানুষের উপজেলা সদরের সাথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপিত হবে। এ সড়ক যোগাযোগ পূর্ণাঙ্গ হলে কৃষি ও অকৃষিজ পণ্য পরিবহন ও বাজারজাত করণ সহজ এবং এলাকার জীবনমান উন্নয়ন ও আর্থ-সামাজিক অবস্থান উন্নতি সাধিত হবে বলে জানান স্থানীয়রা।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দিরাইয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ও শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামসহ একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

ট্যাগ:
লেখক সম্পর্কে

জনপ্রিয়

দিরাইয়ে কালনী সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময়: ০৪:০১:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩

দিরাইবাসীর দীর্ঘ প্রতিক্ষিত কালনী সেতুর উদ্বোধন করা হয়েছে। দিরাই পৌর শহরের প্রাণকেন্দ্র ডাক বাংলোয় এলাকায় কালনী নদীর উপর স্থাপিত ২১০ মিটার পিএসসি গার্ডার সেতুটি মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতুটির উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ সিদ্দিকী এনডিসি, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মকসুদ চৌধুরী, দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান মামুন, দিরাই পৌরসভার মেয়র বিশ্বজিৎ রায়, দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন, উপজেলা প্রকৌশলী ইফতেখার হোসেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আতাউর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি কামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায় প্রমুখ। উদ্বোধন শেষে দোয়া পরিচালনা করেন উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের ইমাম হাফিজ ইদ্রিস আহমদ।

জানা যায়, উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলা কালনী নদীর উপর ২১০ মিটার পিএসসি গার্ডার সেতুটি ২০১৬ সালে ফেব্রুয়ারি থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ছিল বাস্তবায়নকাল। সেতু থেকে সংযোগ সড়ক তৈরি হলে দিরাই উপজেলা সদর থেকে ভায়া জগদল, হোসেনপুর, পাইকাপন, তেলিকোণা হয়ে পার্শ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়ার সাথে গিয়ে যুক্ত হবে এর সড়ক পথ। এ সেতুটি দুটি অংশে নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করা হয়। ২১০ মিটারের মূল সেতুটি নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ২১ কোটি ৭১ লক্ষ টাকা। আর এপ্রোচ নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সেতুটি নির্মাণ হওয়ায় ও প্রক্রিয়াধীন সড়ক নির্মাণ হলে করিমপুর ও জগদল ইউনিয়নসহ পার্শ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার সাথে সড়ক যোগাযোগ স্থাপিত হবে। ২টি ইউনিয়নের ৩০টি গ্রামের প্রায় লক্ষ দেড় লক্ষ মানুষের উপজেলা সদরের সাথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপিত হবে। এ সড়ক যোগাযোগ পূর্ণাঙ্গ হলে কৃষি ও অকৃষিজ পণ্য পরিবহন ও বাজারজাত করণ সহজ এবং এলাকার জীবনমান উন্নয়ন ও আর্থ-সামাজিক অবস্থান উন্নতি সাধিত হবে বলে জানান স্থানীয়রা।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দিরাইয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ও শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামসহ একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।