লন্ডন ১২:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জেমসের কনসার্টে, নিউইয়র্কে ট্রাফিক জ্যাম

দেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নগরবাউল জেমস। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক মাতালেন তিনি। গত রোববার নিউইয়র্কের জ্যামাইকার আমাজুরা হলে আয়োজন করা হয়েছিল জেমসের কনসার্ট।

নগরবাউলের কনসার্ট উপলক্ষ্যে নিউইয়র্কের রাস্তায় দেখা দেয় ট্রাফিক জ্যাম। এমনকি চাপ সামলাতে পুলিশ সিরিউরিটিকেও হিমশিম খেতে হয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফেসবুকে বিষয়টি জানিয়েছেন সংগীতশিল্পী দিনাত জাহান মুন্নি।

সোমবার (৫ জুন) রাতে এক ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন,‘আমার দেশের কোনো শিল্পীর আগমনে যখন বিদেশের মাটিতে ট্র্যাফিক জ্যাম তৈরি হয়। পুলিশ সিরিউরিটিকে হিমশিম খেতে হয়, ভিড় সামলাতে তাদের নাজেহাল হতে হয়, তখন তা ছিল আমার কাছে অবিশ্বাস্য। গতকাল নিউইয়র্কে হয়ে গেল নগরবাউল ‘জেমস’-এর শো। জ্যামাইকার অ্যামাজুরা হলের পুরো এলাকা যেন কাল হয়ে উঠেছিল একটা জেমসময় বাংলাদেশ। মানুষের দীর্ঘ লাইন আর গাড়ির ভিড় সামলাতে ব্যস্ত ছিল নিউইয়র্ক সিকিউরিটি।’

তিনি আরো লিখেছেন, ‘কিছুদিন আগেও আমি স্বপ্ন দেখতাম অন্য দেশের শিল্পীদের মতো আমাদের দেশের কোনো শিল্পী যদি এভাবে সবাইকে অবাক করে দিতে পারত! গতকাল ছিল সেই দিন। আমি গর্বিত আমাদের একজন জেমস আছে, আমি গর্বিত আমাদের জেমসকে ভালোবেসে মানুষের স্রোতে নিউইয়র্কের একটি এলাকা উত্তাল হয়ে উঠেছিল। কাল এই আনন্দে চোখে পানিও চলে এসেছে। একেই বলে আমার দেশ, আমার গান, আমাদের গর্ব আর জেমস। জেমস ভাই আপনি আমাদের অহংকার।’

এদিন সন্ধ্যা ৭ টায় শুরু হওয়া কনসার্টে জেমস ১৩টি গান গেয়ে মাতিয়ে রাখেন দর্শকদের হৃদয়। যেখানে ছিল হিন্দি সিনেমায় গাওয়া তার জনপ্রিয় গান ‘ভিগি ভিগি’।

কনসার্টের আয়োজকেরা জানান, জ্যামাইকার আমাজুরা হলের দেড় হাজার আসন কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। দাঁড়িয়ে কনসার্ট দেখেছেন আরও শ চারেক দর্শক।

আয়োজক প্রতিষ্ঠান শো টাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম জানান, প্রায় পাঁচ বছর পর নিউইয়র্ক মাতাতে এসেছেন জেমস। তাই বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে এই কনসার্টে দর্শক এসেছেন। দর্শকের চাপে আমরা হিমশিম খেয়েছি।

ট্যাগ:
লেখক সম্পর্কে

জনপ্রিয়

জেমসের কনসার্টে, নিউইয়র্কে ট্রাফিক জ্যাম

প্রকাশের সময়: ০৫:৩৪:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ জুন ২০২৩

দেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নগরবাউল জেমস। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক মাতালেন তিনি। গত রোববার নিউইয়র্কের জ্যামাইকার আমাজুরা হলে আয়োজন করা হয়েছিল জেমসের কনসার্ট।

নগরবাউলের কনসার্ট উপলক্ষ্যে নিউইয়র্কের রাস্তায় দেখা দেয় ট্রাফিক জ্যাম। এমনকি চাপ সামলাতে পুলিশ সিরিউরিটিকেও হিমশিম খেতে হয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফেসবুকে বিষয়টি জানিয়েছেন সংগীতশিল্পী দিনাত জাহান মুন্নি।

সোমবার (৫ জুন) রাতে এক ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন,‘আমার দেশের কোনো শিল্পীর আগমনে যখন বিদেশের মাটিতে ট্র্যাফিক জ্যাম তৈরি হয়। পুলিশ সিরিউরিটিকে হিমশিম খেতে হয়, ভিড় সামলাতে তাদের নাজেহাল হতে হয়, তখন তা ছিল আমার কাছে অবিশ্বাস্য। গতকাল নিউইয়র্কে হয়ে গেল নগরবাউল ‘জেমস’-এর শো। জ্যামাইকার অ্যামাজুরা হলের পুরো এলাকা যেন কাল হয়ে উঠেছিল একটা জেমসময় বাংলাদেশ। মানুষের দীর্ঘ লাইন আর গাড়ির ভিড় সামলাতে ব্যস্ত ছিল নিউইয়র্ক সিকিউরিটি।’

তিনি আরো লিখেছেন, ‘কিছুদিন আগেও আমি স্বপ্ন দেখতাম অন্য দেশের শিল্পীদের মতো আমাদের দেশের কোনো শিল্পী যদি এভাবে সবাইকে অবাক করে দিতে পারত! গতকাল ছিল সেই দিন। আমি গর্বিত আমাদের একজন জেমস আছে, আমি গর্বিত আমাদের জেমসকে ভালোবেসে মানুষের স্রোতে নিউইয়র্কের একটি এলাকা উত্তাল হয়ে উঠেছিল। কাল এই আনন্দে চোখে পানিও চলে এসেছে। একেই বলে আমার দেশ, আমার গান, আমাদের গর্ব আর জেমস। জেমস ভাই আপনি আমাদের অহংকার।’

এদিন সন্ধ্যা ৭ টায় শুরু হওয়া কনসার্টে জেমস ১৩টি গান গেয়ে মাতিয়ে রাখেন দর্শকদের হৃদয়। যেখানে ছিল হিন্দি সিনেমায় গাওয়া তার জনপ্রিয় গান ‘ভিগি ভিগি’।

কনসার্টের আয়োজকেরা জানান, জ্যামাইকার আমাজুরা হলের দেড় হাজার আসন কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। দাঁড়িয়ে কনসার্ট দেখেছেন আরও শ চারেক দর্শক।

আয়োজক প্রতিষ্ঠান শো টাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম জানান, প্রায় পাঁচ বছর পর নিউইয়র্ক মাতাতে এসেছেন জেমস। তাই বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে এই কনসার্টে দর্শক এসেছেন। দর্শকের চাপে আমরা হিমশিম খেয়েছি।