লন্ডন ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দিরাইয়ে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় নিহত ১ আহত ১২

  • কালনী ভিউ
  • প্রকাশের সময়: ০৩:৪০:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৪
  • ৫০৮

দিরাইয়ে সদ্য সমাপ্ত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ আল আমিন চৌধুরী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়া সেনগুপ্তার সমর্থকদের মাঝে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় ১ জন নিহত ও উভয় পক্ষের ১২ জন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার ধলুয়া আনোয়ারপুর গ্রামে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক সৈকত আকবর ও আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থক তৈয়ব আলীর লোকজনদের মাঝে এ সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।

এ সংঘর্ষের ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক আব্দুল রফিক মিয়ার ছেলে শওকত আকবর (৬০) নিহত হন। আহতরা হলেন, আমিরুল হকের ছেলে ইলিয়াস মিয়া (২০), আশিক মিয়ার ছেলে ফরহাদ মিয়া (২২), জাফর আলীর ছেলে তাজ উদ্দিন (৪০), তাজুল ইসলামের ছেলে সায়েক মিয়া (১৬), কিতাব আলী ছেলে জয়মু নুর (৩৫), মমিন আলীর ছেলে ফিরোজ মিয়া (৪০), মনোহর আলীর ছেলে আব্দুল মতিন (৩০), আনাই মিয়ার ছেলে সিদ্দিক মিয়া (৭০), সাঞ্জব আলীর ছেলে আলী হোসেন (৩৫), আবু তাহেরের ছেলে মিজানুর রহমান (২৪), জাহির উদ্দিনের ছেলে আল আমিন, শামসুল আলমের ছেলে ফয়েজ মিয়া (৩০)।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার রায়হান উদ্দিন শওকত আকবরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, কোনো রক্তাক্ত জখম না থাকায় ময়না তদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত ঠিক কি কারণে মৃত্যু হয়েছে তা বলা যাচ্ছে না।

দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দিরাই হাসপাতালে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত ঠিক কি কারণে মৃত্যু হয়েছে বলা যাচ্ছে না। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ট্যাগ:
লেখক সম্পর্কে

জনপ্রিয়

দিরাইয়ে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় নিহত ১ আহত ১২

প্রকাশের সময়: ০৩:৪০:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৪

দিরাইয়ে সদ্য সমাপ্ত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ আল আমিন চৌধুরী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়া সেনগুপ্তার সমর্থকদের মাঝে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় ১ জন নিহত ও উভয় পক্ষের ১২ জন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার ধলুয়া আনোয়ারপুর গ্রামে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক সৈকত আকবর ও আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থক তৈয়ব আলীর লোকজনদের মাঝে এ সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।

এ সংঘর্ষের ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক আব্দুল রফিক মিয়ার ছেলে শওকত আকবর (৬০) নিহত হন। আহতরা হলেন, আমিরুল হকের ছেলে ইলিয়াস মিয়া (২০), আশিক মিয়ার ছেলে ফরহাদ মিয়া (২২), জাফর আলীর ছেলে তাজ উদ্দিন (৪০), তাজুল ইসলামের ছেলে সায়েক মিয়া (১৬), কিতাব আলী ছেলে জয়মু নুর (৩৫), মমিন আলীর ছেলে ফিরোজ মিয়া (৪০), মনোহর আলীর ছেলে আব্দুল মতিন (৩০), আনাই মিয়ার ছেলে সিদ্দিক মিয়া (৭০), সাঞ্জব আলীর ছেলে আলী হোসেন (৩৫), আবু তাহেরের ছেলে মিজানুর রহমান (২৪), জাহির উদ্দিনের ছেলে আল আমিন, শামসুল আলমের ছেলে ফয়েজ মিয়া (৩০)।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার রায়হান উদ্দিন শওকত আকবরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, কোনো রক্তাক্ত জখম না থাকায় ময়না তদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত ঠিক কি কারণে মৃত্যু হয়েছে তা বলা যাচ্ছে না।

দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দিরাই হাসপাতালে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত ঠিক কি কারণে মৃত্যু হয়েছে বলা যাচ্ছে না। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।